জাল্লিকাট্টু – একটি মালায়ালাম ষাড়ের গল্প

0
13
জাল্লিকাট্টু(Jallikattu) মুভিটি পরিচালনা করেছেন লিজো জোস পেল্লিসেরী এবং মুভিটির গল্প লেখক ছিলেন এস. হারিশ ও আর. জয়কুমার। মুভিটিতে অভিনয় করেন অ্যান্টনি ভার্গেঝ, চেম্বন বিনোধ জোস ও স্যান্থি বালাচান্দ্রান প্রমুখ। মুভিটি রিলিজ হয় ২০১৯ সালের ৪ অক্টোবরে। অসাধারণ গল্পের এই মুভিটির বাজেট ছিলো মাত্র ৪কোটি এবং বক্স অফিসে ২৫ কোটি রুপি কামিয়ে নেয়।
Jallikattu | Drama, Thriller, Action
Malayalam | IMDB: 7.7/10 | 95minute.

প্লট:

কালান ভার্কি একজন কসাই। যে ফ্রেশ মাংস সাপ্লাই দেয় পুরো গ্রামে। একনিষ্ঠ এই কসাই তার খরিদ্দরকে কখনো ঠকায় না বলে সারা গ্রামে কালান ভার্কি একজন ভালো কসাই নামে খ্যাত। মদের দোকান, বিয়ে বাড়িতে মাংসের প্রয়োজন হলেই ভার্কিকে একদিন আগে তলব করা হয়। সমস্যা সৃষ্টি হয় যখন এক সকালে ষাড় দড়ি ছিড়ে পালিয়ে যায়। অনেক চেষ্টা করার পরেও ষাড়টিকে কেউ ধরতে পারে না। ষাড়টিকে ধরার জন্য ডেকে আনা হয় এক ডাকু কে। যে ডাকুকে আগে গ্রাম থেকে বের করে দেওয়া হয়েছিল।
আর একটু বলতে গেলে স্পয়লার হয়ে যাবে। তো এখন কেউ কী ষাড়টিকে ধরতে পারবে? কেনই বা ডাকুকে আগে গ্রাম থেকে বের করে দেওয়া হয়েছিল? জানতে হলে দেখে নিতে হবে ‘ষাড় দৌড়ানো’ অর্থাৎ জাল্লিকাট্টু মুভিটি।

ব্যাক্তিগত অভিমত:

সমসাময়িক কিছু জনপ্রিয় জনরা থেকে বেরিয়ে এরকম ফিল্ম তৈরি করা মোটেও চারটিখানি কথা নয়। আমরা এসব ফিল্মকে আর্ট ফিল্ম বলি। দেখলে মুভিটিতে কিছুই নেই কিন্তু আছে অনেক কিছুই।
সমাজ চলে কীভাবে? তার মনে হয় একটি গঠনমূলক উত্তর এই জাল্লিকাট্টু মুভিটি। মুভিটির পরিচালক দেখিয়েছেন কীভাবে ছোট একটি গল্পকে পরিনতি দিতে হয়। বলা যায়, পরিচালক দর্শকদের সাথে সাইকোলজিক্যাল গেম খেলেছেন পুরো মুভি মিলিয়ে।
মুভিটি আমাদের সবার জন্য। আমাদের চিন্তাভাবনার মতই মুভির কাহিনী বড় হয়ে গেছে। মুভির ফার্স্ট হাফ একটু বোরিং লাগতে পারে এর কারন হিসেবে বলা যায় মুভিটির কাহিনী বিল্ডআপ। তার পরবর্তী হাফে আপনি মুভিটি নির্মানের আসল বিষয়টি ধরতে পারবেন।
মুভিটি একজন দর্শককে অস্বস্তিকর ভারসাম্যহীনতায় ফেলে দিবে। এবং এই অস্বস্তিকর ভাবনা আপনাকে মুভির DEPTH এ নিয়ে যাবে। যার জন্য দেখে নিতে হবে মুভিটি একদম শেষ পর্যন্ত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here